রাত পোহালেই জৈন্তাপুরে নির্বাচন মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় খসরু লিয়াকত
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১২:০৯

রাত পোহালেই জৈন্তাপুরে নির্বাচন মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় খসরু লিয়াকত

সাইফুল ইসলাম বাবু, জৈন্তাপুর

প্রকাশিত: ২০/০৫/২০২৪ ১১:০৮:৫৪

রাত পোহালেই জৈন্তাপুরে নির্বাচন মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় খসরু লিয়াকত

ছবি: নিজস্ব


ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে গতরাতে শেষ হয়েছে সব ধরণের প্রচার প্রচারণা। এখন শুধু অপেক্ষার পালা ভোটগ্রহনের। রাত পোহালেই মঙ্গলবার জৈন্তাপুরবাসী সাক্ষী হতে যাচ্ছে ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের। কে হচ্ছে আগামী পাঁচ বছরের জন্য জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান।  সেই কৌতুহল এখন সর্বজনে। চেয়ারম্যান পদের পাশাপাশি ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকলেও গত তিনদিনে প্রচার প্রচারণার সমাপনী সময়ে চেয়ারম্যান পদে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী এম লিয়াকত আলি ও রোটারিয়ান আব্দুল গফফার চৌধুরী খসরুর প্রচারণা ও পথসভার দৃশ্য এখন মূল আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে।


২য় ধাপে জৈন্তাপুর উপজেলায় পাঁচজন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও বর্তমান চেয়ারম্যান কামাল আহমদ ও হাজী হোসাইন আহমদ নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার ঘোষনা দিলে মাঠে রয়েছেন লিয়াকত আলি ও গফফার চৌধুরীর সাথে উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ইসমাইল আলি আশিক।


ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদের তফসিল ঘোষণার অনেক আগে থেকেই প্রচার প্রচারণায় সরব ছিলেন জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক এম লিয়াকত আলি। তার নির্বাচনী প্রতীক আনারস। নির্বাচন ক্যাম্পেইনিংএ গত একমাসে উপজেলার বিভিন্ন প্রান্তে সকল শ্রেনী পেশার মানুষের সাথে নির্বাচনী উঠান বৈঠক ও পথসভা করেছেন। উপজেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট ও বাজারগুলোতে তার পথসভায় মানুষের উপস্থিতি ও দূরদূরান্ত থেকে আগত কর্মী সমর্থকদের নিয়ে পথসভায় অংশগ্রহণের দৃশ্যে প্রমাণিত হয় নির্বাচনের মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তার নাম। 


এদিকে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী কমিউনিটি নেতা ও জৈন্তাপুর প্রবাসী গ্রুপের উপনেতা রোটারিয়ান আব্দুল গফফার চৌধুরী খসরু নির্বাচনে প্রচার প্রচারণায় একদম সংক্ষিপ্ত সময় পেয়েছেন। উপজেলার বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসায় আজীবন দাতা সদস্য ও বিশিষ্ট দানশীল ব্যাক্তিত্ব হিসেবে জনশ্রুতি থাকা রোটারিয়ান খসরু গত এপ্রিল মাসের ১৮ তারিখ নির্বাচনে অংশ নিতে দেশে আসেন। সেই সময় তিনি নমিনেশন দাখিল করলে নির্বাচনে নতুন হিসাব নিকাশ শুরু হয় উপজেলার ভোটারদের মাঝে।  প্রথম দিকে প্রচার প্রচারণায় পিছিয়ে থাকলেও প্রতীক বরাদ্দের সপ্তাহ খানেক পর  ধীরে ধীরে আলোচনায় উঠে আসে তার নাম। তার নির্বাচনী প্রতীক কাপপিরিচ। বিশেষ করে শেষ মূহুর্তে উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট ও বাজার সমূহে পূর্ব নির্ধারিত পথসভায় মানুষের লক্ষ্যনীয় উপস্থিতি দেখে দৃশ্যপট পাল্টে যেতে শুরু হয়। সব শেষে গতকাল হরিপুর ও তার নিজ এলাকা দরবস্ত শাহী ঈদগাঁ মাঠে শেষ পথসভায় জনসমাগম ছিলো চোখে পড়ার মত। বর্তমানে তিনি চেয়ারম্যান হওয়া দৌড়ে এম লিয়াকত আলির প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী। 


এদিকে ২রা মে'র পর থেকে আনুষ্ঠানিক প্রচার প্রচারণা পুরো উপজেলায় শান্তিপূর্ণ ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুই প্রার্থী ও সমর্থকদের মধ্য কোন প্রকার উত্তেজনা কিংবা সংঘর্ষের মত কোন খবর পাওয়া যায় নি। 


আগামীকাল ২১মে ভোটগ্রহণ। এ বিষয়ে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মে সালিক রুমাইয়া বলেন, ৪৬টি ভোট কেন্দ্র প্রস্তুত। বিকেলের মধ্যে নির্বাচনী সরঞ্জামাদী কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌছে যাবে। শুধুমাত্র ব্যলট পেপার প্রতিটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের ঘন্টা দুয়েকের ভিতরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তায় পৌছে দেয়া হবে। তিনি জানান ভোট গ্রহেনের দিন ছয়টি ইউনিয়নে ছয়টি মোবাইল টিম একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে পরিচালিত হবে।


সেই সাথে বিজিবি, পুলিশ সহ ছয়টি টিম ও দুইটি রিজার্ভ টিম কাজ করবে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে। কোথাও  কেন্দ্র দখল কিংবা অপ্রিতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টির অপচেষ্টা চালালে তা কঠোর ভাবে দমন করা হবে বলে তিনি নিশ্চিত করেন। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সর্বাত্মক সহায়তা ও তথ্য প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্টদের তিনি আহবান জানান।  তিনি আরো বলেন, নির্বাচন পরবর্তী যেকোন সহিংসতা কিংবা অপ্রিতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় পরবর্তী নির্দেশনা মোতাবেক জনদূর্ভোগ সৃষ্টি হয় এ রকম সকল প্রকার বিজয় মিছিল ও মটর শোভাযাত্রা না করার আহবান জানান তিনি। 

আগামীকাল ভোট গ্রহন সকাল ৮:০০ ঘটিকা থেকে শুরু হয়ে একটানা বিকেল ৪:০০ ঘটিকা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। তিনজন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর পাশাপাশি এ বছর ৮ জন পুরুষ ও ৪ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জৈন্তাপুর উপজেলায়।

এস এইচ টি/


This is the free demo result. For a full version of this website, please go to Website Downloader