কোম্পানীগঞ্জে অসুস্থ ৭৬ বছরের বৃদ্ধকে করা হলো মারামারি মামলার প্রধান আসামি
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১০:২৪

কোম্পানীগঞ্জে অসুস্থ ৭৬ বছরের বৃদ্ধকে করা হলো মারামারি মামলার প্রধান আসামি

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪/০২/২০২৪ ০৮:৩১:০৭

কোম্পানীগঞ্জে অসুস্থ ৭৬ বছরের বৃদ্ধকে করা হলো মারামারি মামলার প্রধান আসামি

ফাইল ছবি


সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে বাড়িতে চিকিৎসাধীন বৃদ্ধ ফুল মিয়াকে (৭৬) সহিংসতা ও লুটপাট মামলার প্রধান আসামি করা হয়েছে। এ নিয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন অসুস্থ ওই বৃদ্ধ। এঘটনায় উপজেলাজুড়ে সমালোচনা ঝড় বইছে।

বুধবার সকালে নিজেদের বাঁচাতেই পাল্টা মিথ্যা মামলা দিয়ে বৃদ্ধ ফুল মিয়া (৭৬) সহ ১১ জনের নাম উল্লেখ ও ৬-৭ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা দায়ের করেন জখমের ঘটনায় আটক আসামি ফরিদ মিয়ার স্ত্রী মোছা. মিনারা বেগম। এদিকে মামলার সঠিক তদন্তের দাবি জানিয়েছেন সচেতন মহল। 

শফিকুল ইসলামের মামলা সূত্রে ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাযায় সোমবার রাত ৭টায় উপজেলার টুকের বাজার জামে মসজিদ সংলগ্ন হুসেন মিয়ার দোকানের পিছনের রাস্তায় দিয়ে তার ছোট ভাই আলমগীর, রুবেল ও সালমান ব্যবসায়ের টাকা নিয়ে অফিসে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ দেশীয় অস্ত্রসহ দলবল নিয়ে তাদের পথরোধ করে ইসলামপুর গ্রামের মৃত ওয়াজেদ মিয়ার ছেলে ফরিদ মিয়া ও তার ছেলে শাহ আলী, আশিক, হৃদয়, মৃত রতন মিয়ার ছেলে মোহন, রিয়াজ, মাসুক মিয়ার ছেলে আশিকসহ অজ্ঞাত ৯-১০ জনের একটি দল। এসময় তারা আলমগীর, রুবেল ও সালমানকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে হত্যার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে আলমগীরের কাঁদে থাকা ব্যাগের ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। প্রথমে তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন সফিকুল ইসলাম। 

এদিকে নিজেদের বাঁচাতেই পাল্টা মিথ্যা মামলা দিয়ে প্রতিপক্ষ ফাঁসানোর চেষ্টা করছেন বলে দাবি করেছেন সহিংসতা ও লুটপাটের মামলার প্রধান আসামি বৃদ্ধ ফুল মিয়া। তিনি বলেন, আমি বয়স্ক মানুষ। আমার বয়স ৭৭ বছর। আমি কয়েক বছর ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছি। মামলার এজাহারে আমাকে ১ নম্বর আসামি করা হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি গোলাম দস্তগীর আহমেদ বলেন, মিনারা বেগমের অভিযোগের ভিত্তিতে বৃদ্ধ ফুল মিয়া সহ ১১ জনের নামে মামলা রেকর্ড হয়েছে। তথ্য প্রমাণ ছাড়া নিরপরাধ কাউকে মিথ্যা মামলা ফাঁসানোর সুযোগ নেই। তদন্ত করে প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

জৈন্তাবার্তা/জেএ


This is the free demo result. For a full version of this website, please go to Website Downloader