মোহাম্মদ সালাহর বিকল্প আনছে লিভারপুল!
বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৩:১৯

মোহাম্মদ সালাহর বিকল্প আনছে লিভারপুল!

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩/০৫/২০২৪ ০৮:২৪:৫৪

মোহাম্মদ সালাহর বিকল্প আনছে লিভারপুল!

ছবি: সংগৃহীত


মোহাম্মদ সালাহ থাকবেন না কি চলে যাবেন? গত দুই মৌসুম ধরেই আলোচনার বিষয়বস্তু এমনই। সৌদি লিগের ক্লাবগুলো সালাহকে চাইছে প্রবলভাবে। মিশরীয় এই তারকাকে অ্যানফিল্ডে টেনে এনেছিলেন ইউর্গেন ক্লপ। সেই ক্লপও চলে যাবেন এই মৌসুম শেষে। দুই সপ্তাহ আগে ক্লপের সঙ্গে সাইডলাইনে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ও হয়েছে। সবমিলিয়ে অ্যানফিল্ডে সালাহর সময়ের শেষ দেখছেন অনেকেই।

এরইমাঝে শুরু হয়েছে নতুন গুঞ্জন। মিশরীয় এই তারকার বিকল্প খোঁজাও শুরু করেছে অলরেড শিবির। আর এই তালিকায় সবার চেয়ে এগিয়ে আছে নিউক্যাসেল ইউনাইটেডের ইংলিশ তারকা অ্যান্থোনি গর্ডন। চলতি মৌসুমে ম্যাগপাইদের হয়ে চমৎকার সময় পার করেছেন তিনি। নিজের প্রথম মৌসুমেই তাক লাগিয়েছেন ২৩ বছরের এই তরুণ।

নিজের পারফরম্যান্সের সুবাদে গ্যারেথ সাউথগেটের ২০২৪ সালের ইউরো স্কোয়াডে ডাক পাবেন গর্ডন, সেটাও অনেকটাই নিশ্চিত। আর এই প্রতিভাবান তরুণের জন্য ১০০ মিলিয়ন পাউন্ড পর্যন্ত খরচ করতে রাজি লিভারপুলের মালিকপক্ষ। ব্রিটিশ পত্রিকা ডেইলি স্টারের বরাতে খবর প্রকাশ করেছে গোল ডটকম। 

চলতি বছর এডি হাউয়ের নিউক্যাসেল দলে বেশ দারুণ ছন্দে ছিলেন গর্ডন। করেছেন ১০ গোল। সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন আরও ১০টি। এমনকি ক্লাবের বর্ষসেরা খেলোয়াড়ও হয়েছেন তরুণ এই উইঙ্গার। তারই দুই সতীর্থ সুইডিশ স্ট্রাইকার আলেকসান্দার ইসাক এবং ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ব্রুনো গিমারায়েস আছেন আর্সেনালের রাডারে।

তবে এদের মধ্যে গর্ডনের দলবদল বিষয়ক গুঞ্জন নিয়েই ম্যাগপাই সমর্থকদের মধ্যে আলোচনা হচ্ছে সবচেয়ে বেশি। ইংল্যান্ডের জার্সিতে দুই ম্যাচ খেলা গর্ডন নিজেও হয়ত লিভারপুলে আসতে আগ্রহী হবেন। নিজে জন্মেছেন লিভারপুল শহরে। লিভারপুলেরই ভক্ত ছিলেন। বড়ও হয়েছেন তাদেরই অ্যাকাডেমিতে। তবে ১১ বছর বয়সে তাকে ছেড়ে দেয় অলরেডরা। বাধ্য হয়েই তিনি চলে যান নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী এভারটনে।

এভারটন থেকে চলতি মৌসুমের শুরুতেই ৪৫ মিলিয়ন পাউন্ডে নিউক্যাসেলে গিয়েছিলেন গর্ডন। এক বছর পরই আবার তাকে নিয়ে দলবদলের গুঞ্জন শুরু হয়েছে। শেষ পর্যন্ত এই গুঞ্জন সত্য হবে কি না তা অবশ্য সময়ই বলে দেবে। 

এম সি


This is the free demo result. For a full version of this website, please go to Website Downloader