নতুন ট্র্যাকে পুরনো ‘রাজা-রাণী’
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪৩

নতুন ট্র্যাকে পুরনো ‘রাজা-রাণী’

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯/০২/২০২৪ ০৮:৩৪:৫৯

নতুন ট্র্যাকে পুরনো ‘রাজা-রাণী’

ছবি: সংগৃহীত


বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনের অন্যতম তীর্থস্থান বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম। ২০২১ সালের আগস্ট থেকে সংস্কার কাজ চলমান থাকায় ফুটবল ও অ্যাথলেটিক্স আয়োজন হয়েছে বাইরে। প্রায় তিন বছর পর আজ অ্যাথলেটিক্স নিজেদের হোমে ফিরেছে। সাবেক-বর্তমান অ্যাথলেটদের পদচারণায় মুখরিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম।

আজকের প্রতিযোগিতায় খানিকটা ভিন্নতা ছিল আয়োজন ও ব্যবস্থাপনায়। ইলেকট্রনিক টাইমিং, ফটো ফিনিশিং ও নতুন ট্র্যাক। সব মিলিয়ে ভিন্ন এক আবহ অ্যাথলেটিক্সে। নতুন আবহে অবশ্য পুরনো রাজা-রাণীকেই পেয়েছে দেশের অ্যাথলেটিক্স।

এক বছর পর অনুষ্ঠিত জাতীয় অ্যাথলেটিক্সের মূল ইভেন্ট ১০০ মিটার স্প্রিন্টে সেরা সেই ইমরানুর রহমান এবং শিরিন আক্তার। ইলেক্ট্রোনিক্স টাইমিংয়ে ১০.৩৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে লন্ডন প্রবাসী ইমরানুর দ্রুততম মানব এবং ১২.১১ সেকেন্ডে দ্রুততম মানবী হয়েছেন নৌবাহিনীর শিরিন। খেতাবের সংখ্যা হিসাব করলে শিরিনের ১৫তম এবং ইমরানুরের চতুর্থতম।

ইমরানুর পাখির চোখ করেছেন এ মাসে ইরানের রাজধানী তেহরানে অনুষ্ঠেয় এশিয়ান ইনডোর চ্যাম্পিয়নশিপকে। আগের আসরে ৬০ মিটার স্প্রিন্টে জেতা স্বর্ণপদক অক্ষন্ন রাখতে চান এই স্প্রিন্টার, ‘আমার এখন মূল লক্ষ্য তেহরানে স্বর্ণ অক্ষুন্ন রাখা। সে লক্ষ্যেই আমি অনুশীলন করছি। যার অংশ হিসাবে এই জাতীয় টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া।’ ১৫ বার দ্রুততম মানবী হলেও শিরিনের চোখ প্যারিস অলিম্পিকে খেলা। তার কথায়, ‘জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে আমি দ্রুততম মানবী হয়েছি ঠিক, তবে আমার লক্ষ্য প্যারিস অলিম্পিকে খেলা। ওয়াইল্ড কার্ড পেলে অবশ্যই আমি প্যারিসের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করবো।’

ঘরোয়া অ্যাথলেটিক্সের নিরিখে টাইমিংয়ের উন্নতি করেছেন ইমরানুর ও শিরিন। ২০২২ সালের ডিসেম্বরে সবশেষ আসরে ইমরানুরের ১০.৪৯ ও শিরিনের টাইমিং ছিল ১২.২০ সেকেন্ড। তবে আন্তর্জাতিক আসরের তুলনায় অবশ্য সময় বেশি নিয়েছেন এই দুই অ্যাথলেট। গত বছরের সেপ্টেম্বরে আন্তর্জাতিক অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন স্বীকৃত লন্ডনে অনুষ্ঠিত একটি টুর্নামেন্টে ইমরানুর সময় নিয়েছিলেন ১০.১১ সেকেন্ড। শিরিনের আন্তর্জাতিক সেরা টাইমিং অতটা ভাল নয়।

দেড় ঘন্টার উদ্বোধনী বক্তব্য, সাবেক দ্রুততম মানবী নাজমুন্নাহার বিউটি ও পোলভল্টার শরিফুল হাসানের মশাল নিয়ে দৌঁড়ানোর সময় আগুনের গোলা পড়ে যাওয়া, স্টেডিয়ামজুড়ে কর্মকর্তাদের ছবি থাকলেও সাবেক কৃতি অ্যাথলেটদের ছবি নেই। এমন দুর্বলতার মধ্য দিয়ে চলছে অ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতা।

দ্রুততম মানব-মানবীকে পদক প্রদান করে গণমাধ্যমে কথা বলেছেন ফেডারেশনের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব তোফাজ্জেল হোসেন মিয়া। মাত্র দুই দিনে জাতীয় অ্যাথলেটিক্স আয়োজিত হচ্ছে তাই অ্যাথলেটদের উপর চাপ পড়ছে। এ নিয়ে প্রশ্ন তোলায় ফেডারেশনের সভাপতি অনুধাবন করেছেন ভবিষ্যতে সময় বৃদ্ধি করার, 'আসলেই এটা যৌক্তিক বিষয় উল্লেখ করেছেন। সামনে আরো বেশি দিন নিয়ে এই আয়োজন অনুষ্ঠিত হবে।'

গত বছর আয়োজিত শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল সাড়ে তিন লাখ অ্যাথলেট। সেখান থেকে মাত্র ৩৫ জন অ্যাথলেট পেয়েছে ফেডারেশন। সেই বাছাইকৃত অ্যাথলেটদের ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হচ্ছে আজ প্রায় এক বছর পর। নানা কারণে খানিকটা বিলম্বে শুরু হলেও ক্যাম্প ও প্রতিযোগিতার ধারাবাহিকতা বজায় রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ফেডারেশনের সভাপতি। পাশাপাশি অ্যাথলেটিক্স একাডেমী ও কমপ্লেক্স নিয়ে কাজ করার কথাও জানিয়েছেন।

এম সি


This is the free demo result. For a full version of this website, please go to Website Downloader