নবীগঞ্জে ওরসে নাচতে গিয়ে ২ যুবকের মৃত্যু
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:৩৭

নবীগঞ্জে ওরসে নাচতে গিয়ে ২ যুবকের মৃত্যু

ইকবাল হোসেন তালুকদার, নবীগঞ্জ

প্রকাশিত: ২৬/০১/২০২৪ ০৮:০৪:২০

নবীগঞ্জে ওরসে নাচতে গিয়ে ২ যুবকের মৃত্যু

প্রতিকী ছবি


হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় বার্ষিক ওরসে মজা করতে গিয়েছিলেন দুই যুবক। বার্ষিক ওরসে হয় নাচ-গান। সেই উন্মাদনায় গা ভাসিয়েছিলেন অন্যদের পাশাপাশি এ দুজন। কিন্তু সেই নাচই হল জীবনের শেষ। নাচতে নাচতেই হঠাৎ মাটিতে পড়ে গেলেন তারা। পরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঘটনা স্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি ) রাতে ইনাতগঞ্জের কাকড়া গ্রামের মাঠে অনুষ্ঠিত বার্ষিক ওরসে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত দুজন হলেন, নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের কাকুড়া গ্রামের মৃত গেদা মিয়ার পুত্র আব্দুল কালাম(৪০) ও ঘোলডুবা গ্রামের আব্দুল আজিজ(৪২)।

জানা যায়, প্রতি বছর কাকুড়া গ্রামে মাঠে নমিসা (র:) ইছালে ছওয়াব উপলক্ষে ১৫৬ তম বার্ষিক ওরস অনুষ্টিত হয়। ওরসে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে নাচ গানের জন্য নারী, পুরুষ শিল্পী আনা হয়। শিল্পী যখন নাচ গান করছিলেন এসময় অন্যদের সাথে উল্লেখিত দুজন নাচ ছিলেন। কিন্ত এ নাচই যে তাদের জীবনের শেষ নাচ হয়তো তাদের জানা ছিল না। নাচতে নাচতে হঠাৎ মাটিতে লুটিয়ে পড়েন এবং ঘটনা স্থলেই চলে যান না ফেরার দেশে। শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) নিজ নিজ গ্রামে নামাজে জানাজা শেষে তাদের গ্রাম্য কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি ) আবু বক্কর। তিনি বলেন, তারা দুই জন স্টোক এর রোগী ছিল তার আগে ও কয়েক বার স্টোক করে। মাজারে শিড়নি বিতরণ থেকে শুরু করে গানের সময় গানের তালে তালে জিকির করে তখনই হৃদরোগে আক্রান্ত মাঠিতে পড়ে যায় কালাম তারপর আজিজ নামের ব্যাক্তি ও স্টোক করে পরে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলো কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। এই বিষয়ে কেউ লিখিত কোন অভিযোগ করে নাই।

উল্লেখ্য, নবীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে ওরস শরীফ উপলক্ষে মেলা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। বিশেষ করে শীত মৌসুমে। এসব মেলায় হাজারো ভক্তের ঢল নামে। আর তাই সময়-সুযোগ বুঝে মৌসুমি সময় হিসেবে বেচে নিয়ে মেলার ঐতিহ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের নাম করে প্যান্ডেলের ভেতরে মেয়েদের নিয়ে চলে অশ্লীল নৃত্য- গান। নাচ দেখে সন্তুষ্ট হয়ে টাকাকড়ি ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেয় সকলে। পাশাপাশি টাকা দেবার বিনিময়ে নারীদের একটু স্পর্শ পাওয়ার সুযোগ হয় তাদের। এসব অপকর্ম বন্ধ করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন উপজেলাবাসী।

জৈন্তাবার্তা/জেএ


This is the free demo result. For a full version of this website, please go to Website Downloader